রামপাল: হরতাল সমর্থকদের উপর পুলিশ সদস্যরা

সুন্দরবনের আসনরামপালে কয়লাবাদীকেন্দ্রের দাবিতে ঢাকায় আধবেলা হরতাল পালিত হয়েছে। আজ সকাল ৬ সকাল ৬ পৌনে ২টা তেল, ইনি, খনিজ ক্ষমতা ও পালা থেকে দুপাল-বন্দর জাতীয় ডাকে এই হরতাল হয়।

সুন্দরবন নির্বাচনের দাবিতে হরতাল সমর্থকদের নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করে পুলিশ। ছবি: সুজিত সরকার

“>

সুন্দরবন নির্বাচনের দাবিতে হরতাল সমর্থকদের নিয়ন্ত্রণে ব্যবহার করে পুলিশ। ছবি: সুজিত সরকার

সুন্দরবনের আসনরামপালে কয়লাবাদীকেন্দ্রের দাবিতে ঢাকায় আধবেলা হরতাল পালিত হয়েছে। আজ সকাল ৬ সকাল ৬ পৌনে ২টা তেল, ইনি, খনিজ ক্ষমতা ও পালা থেকে দুপাল-বন্দর জাতীয় ডাকে এই হরতাল হয়।

হরতালে প্রায় পুরোটা সময় ঢাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশের সঙ্গে হরতাল সমর্থকদের থেমে থেমে বাধা। এ সময় প্রায় এক'শ কানে তার শেল ছুড়েছে পুলিশ। এর ভিন্নে- বিপরীতে উত্তর থেকে কিছু ইটকেল মারা হয়।

শাহবাগ থেকে পাঁচ জন হরতাল সমর্থক ইন্সটিটি করেছে পুলিশ। ব্যক্তিগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সাংবাদিক প্রতিনিধি হন।

হরতাল সকাল সকাল ৬টার দিকে বিভিন্ন ছাত্র সংসদের পক্ষ থেকে সমর্থন দিয়েছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মিঃ শাহবাগের দিকে যাওয়ার চেষ্টা। মিছিল বাধা পুলিশ বাধা দেয়। তখন থেমে হরতাল সমর্থকদের ওপর টিয়ারগ্যাস ও জলকামান ব্যবহার করে পুলিশ। জয়টি ৭০টি কাউন্টানে একের শেল করা হয়েছে বলে শাহবাগেওসি ব্যবহার প্রাপ্ত কর্মকর্তা () আবু বকর সিদ্দিক।

শাহবাগ থেকে পাঁচ জন হরতাল সমর্থক ইন্সটিটি করেছে পুলিশ। মধ্য মধ্যে ও জিয়াউর জুয়েল তপু সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন বেতালের সদস্য। ঘটনা থেকে শাহবাগ পাকিস্তান ওসি ইন্সটরেশন নিশ্চিত করেছেন।

এছাড়াও পড়ুন  ইউপির মোরাদাবাদ জেলায় ইট ভাটায় গর্তে ডুবে ৪ বছরের ছেলের মৃত্যু | ইন্ডিয়া নিউজ - টাইমস অফ ইন্ডিয়া

এটিন নিউজার্স কবিরসন আব্দুল আলিম গ্রুপের দিকে শাহবাগ মোড়ে পুলিশের সাথে হরতালের সমর্থকদের প্রতিবাদ করার সময় হয়। তার ও হাত থেকে রক্ত ​​ক্ষরণে আঘাত করা। চিকিৎসার জন্য তাকে একটি পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও মিরপুর ১০ নম্বর ইংরাজী ঢাকা ট্রিবিউনের এলাকায় এডির মোরশেদ জাহান মিঠ এমপির সহকারী কমিশনার মাহবুবের হস্তান্তর লার্ছিত রাজ্য কথা। মিঠুন দ্য ডেইলিকে বলেন, “ট্রাফিক পুলিশ সেখানে হরতাল সমর্থকদের উপর বাস নিয়ন্ত্রণ নির্দেশ দেয়। এ আমি তাকে এসি মাহবুব (পশ্চাতে) তিনি আমাকে লাঞ্ছিত করেন। আমার চিঠিপত্র দেখালে তিনি বলেন, ইংরেজি পত্রিকা পড়ে না।

ভোট পল্টনে তেল, খনিজ ক্ষমতা ও- বন্দর প্রতিনিধি জাতীয় সংসদে নির্বাচনে প্রার্থীরা হরতালের মিছিল সমর্থন করেছেন। পুলিশ নজরদারিতে এই মিছিলে হয়েছে।

জাতীয় সংসদ সদস্যচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ ডেইলিস্টারকে বলেন, সুন্দরবন আন্দোলন আন্দোলনে জনগণের সমর্থন রয়েছে। আন্দোলন এই আন্দোলনে সামিল আহ্বান জানাই আমরা।

তিনি আরও বলেন, লড়াই সংগ্রামে মিলিত হতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আমরা জানতে চাইছি, যানবাহন বের করতে তাদের ভয়ভীতি পুলিশ পুলিশ দিয়েছিল।

হরতালের সমর্থনে শান্তিনগর ও মোহাম্মদপুর এলাকাতেও মিছিল হয়েছে। তবে কিছুর জায়গায় কোন অপ্রীতিকর শোনানি।

দেখতে দেখতে অনেকগুলি অবস্থানে রয়েছে। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ মোতাবেক রাখা হয়।

সুন্দরবনের কাছেরামপালে কয়লাবাদীকেন্দ্র নিয়ে পরিবেশগত ঝুঁকি রয়েছে এবং এর বিরুদ্ধে সংগ্রাম আন্দোলনের পরও নিজের অবস্থানে অনড় সরকার। রামপালকেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন দেশের প্রতিবাদ হতে দেখা গেছে। ইউনেস্কো সহ বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সংস্থাকে কয়লা প্রকাশকেন্দ্রের উদ্দেশে উদ্বুদ্ধ করেছে।

উৎস লিঙ্ক