নিহতরা হলেন- উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের বাসিন্দা ৪০ বছর বয়সী বিউটি বেগম ও তার ১৬ বছরের মেয়ে লামিয়া।আমার মেয়ে খালিয়া ইউনাইটেড একাডেমির এসএসসি পরীক্ষার্থী।

উত্তর ক্যারোলিনা বিশ্ববিদ্যালয়

ফেব্রুয়ারি 19, 2024 11:15 am

সর্বশেষ সংশোধিত: ফেব্রুয়ারি 19, 2024 সকাল 11:17 এ

প্রতিনিধি চিত্র।ছবি: সংগ্রহ

”>

প্রতিনিধি চিত্র।ছবি: সংগ্রহ

রবিবার রাতে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক নারী ও তার মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন- উপজেলার জালালাবাদ ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের বাসিন্দা ৪০ বছর বয়সী বিউটি বেগম ও তার ১৬ বছরের মেয়ে লামিয়া। মেয়ে কালিয়া ইউনিয়ন কলেজের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

লামিয়ার বাবা টুকু ও তার মামা হারুনের মধ্যে গ্রামে পৈত্রিক জমি নিয়ে পুলিশ ও স্থানীয়দের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে লামিয়া ফোনে কথা বলার সময় হারুনের মামার বাড়ির উঠানে প্রবেশ করলে সে তাকে উঠোন থেকে বের হয়ে যেতে বলে এবং লামিয়াকে অপমান করে, এতে লামিয়ার মা মেই মেই ও তার চাচার মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে হারুন ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে বিউটি ও লাম্যাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

তাদের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে সরদার উপজেলার ২৫০ শয্যা আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

সদর থানার তদন্ত কর্মকর্তা হারুন-অর-রশিদ।খুনের পরপরই আসামি ও তার পরিবার আত্মগোপন করলেও হারুনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।





Source link

এছাড়াও পড়ুন  ড্রোন স্টার্টআপ জিপলাইন 1 মিলিয়ন ডেলিভারি অতিক্রম করেছে এবং রেস্তোরাঁর ক্রমাগত বৃদ্ধির জন্য উন্মুখ