মঙ্গলবার, ২৫-জুন ২০১৯, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন
  • রাজনীতি
  • »
  • ভোটে ‘অনিয়মের’ সচিত্র প্রতিবেদন করছে বিএনপি

ভোটে ‘অনিয়মের’ সচিত্র প্রতিবেদন করছে বিএনপি

Sheershakagoj24.com

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারী, ২০১৯ ১১:৩১ অপরাহ্ন

শীর্ষকাগজ, রাজশাহী: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘অনিয়মের’ প্রতিবেদন তৈরির জন্য অডিও, ভিডিও ও ছবিসহ তথ্য-প্রমাণ সংগ্রহ করছেন রাজশাহীর বিএনপি প্রার্থীরা। এসব তথ্য-প্রমাণ নিয়ে নির্বাচন ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হবে বলেও জানিয়েছেন তারা।
জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মামুন বলেন, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের নির্দেশনা অনুযায়ী রাজশাহীর পাঁচটি আসনে ভোটে ‘অনিয়মের’ তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। দলীয় নেতাকর্মী ও পোলিং এজেন্টরা তথ্য সংগ্রহ করছেন।
অডিও, ভিডিও ও স্থিরচিত্রের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। সেগুলো প্রতিবেদন আকারে কেন্দ্রে জমা দেওয়া হবে। সেক্ষেত্রে তথ্য পাওয়ার জন্য প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং ও পোলিং অফিসারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে প্রার্থীরা জানিয়েছেন।
রাজশাহী-৩ আসনে ভোটে ‘অনিয়মের’ প্রতিবেদন প্রায় চূড়ান্ত বলেও জানিয়েছেন বিএনপি নেতারা।
ভোটের দিন মোহনপুর উপজেলার পাকুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সহিংসতায় নিহত মেরাজুল ইসলামকে ধানের শীষের সমর্থক ধরে নিয়ে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হচ্ছে।
এ আসনের বিএনপি প্রার্থী শফিকুল হক মিলন বলেন, মেরাজুলের ভাই হুমায়ুন আওয়ামী লীগের কর্মী হলেও নিহত মেরাজুল বিএনপির সমর্থক।
মেরাজুল ধানের শীষের প্রচারণা চালিয়েছেন, যার তথ্য-প্রমাণ আমাদের হাতে এসেছে। এছাড়া ওই কেন্দ্রে সহিংসতার সময় একটি লাল গাড়ি থেকে গুলি ছোড়ার তথ্য-প্রমাণও আমরা পেয়েছি। সেগুলো প্রতিবেদনের সঙ্গে দেওয়া হবে।
রাজশাহীর ছয়টি আসনের মধ্যে পাঁচটিতে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন বিএনপি প্রার্থীরা। তারা হলেন- রাজশাহী-১ আসনে আমিনুল হক, রাজশাহী-২ আসনে মিজানুর রহমান মিনু, রাজশাহী-৩ আসনে শফিকুল হক মিলন, রাজশাহী-৪ আসনে আবু হেনা ও রাজশাহী-৫ আসনে নজরুল ইসলাম মণ্ডল। রাজশাহী-৬ আসনে বিএনপির কোনো প্রার্থী ছিল না।
পাঁচটি আসনের মধ্যে শুধু রাজশাহী-২ আসনে নৌকার প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশার সঙ্গে ধানের শীষের মিজানুর রহমান মিনুর প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে, ১২ হাজার ১৪৬ ভোটে হেরেছেন তিনি। বাকি চারটিতে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন বিএনপি প্রার্থীরা।
শীর্ষকাগজ/এনএস