সোমবার, ২০-আগস্ট ২০১৮, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন

বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষার দাবি

Shershanews24.com

প্রকাশ : ০৮ মে, ২০১৮ ১০:২৬ অপরাহ্ন

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: দেশে বছরে প্রায় সাড়ে ৭ হাজার শিশু থ্যালাসেমিয়া নিয়ে জন্ম নিচ্ছে। সারা বিশ্বে এ সংখ্যাটি এক লাখে দাঁড়িয়েছে। থ্যালাসেমিয়া বংশগত রোগ। আক্রান্ত রোগীর রক্তে পর্যাপ্ত পরিমাণ হিমোগ্লোবিন তৈরি হয় না। এতে মারাত্মক রক্তশূন্যতা দেখা দেয়। সাধারণত জন্মের এক থেকে দুই বছরের মধ্যে শিশুদের থ্যালাসেমিয়া ধরা পড়ে। আর ওই সময়ে সঠিক চিকিৎসা না হলে রোগী ১০ থেকে ১৫ বছরের মধ্যে মারা যায়।
মঙ্গলবার বিশ্ব থ্যালাসেমিয়া দিবস। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘বিয়ের আগে পরীক্ষা করলে রক্ত, সন্তান থাকবে থ্যালাসেমিয়ামুক্ত’। দিবসটি উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
দিবসটি উপলক্ষে সোমবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বাংলাদেশ থ্যালাসেমিয়া ফাউন্ডেশন সেমিনারের আয়োজন করে। ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে বিয়ের আগে বাধ্যতামূলক রক্ত পরীক্ষা করার দাবি জানানো হয়।
সেমিনারের মূল প্রবন্ধে বাংলাদেশ থ্যালাসেমিয়া ফাউন্ডেশনের মহাসচিব মো. আবদুর রহিম বলেন, স্বামী-স্ত্রী দু'জনই থ্যালাসেমিয়ার বাহক হলে সন্তানের এ রোগ হতে পারে। কিন্তু একজন সুস্থ থাকলে সন্তানদের এ রোগ হওয়ার কোনো আশঙ্কা নেই। বাংলাদেশে প্রতিবছর ১৭ লাখ বিয়ে হয়। বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে ঝুঁকি-মুক্ত দম্পতি নির্ণয় করা সম্ভব।
সেমিনারে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ রোগ সম্পর্কে জনসচেতনতা বাড়ানোর তাগিদ দেন। তিনি বলেন, বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষার বিষয়ে সরকারিভাবে ব্যাপক প্রচারণা চালালে মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়বে। সচেতনতা বাড়লেই মানুষ এটা মেনে নেবে। আর এটি বাধ্যতামূলক করার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ দরকার।
সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করে এ রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ওষুধে ভর্তুকি দেওয়ার আশ্বাস দেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সেমিনারে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন সচিবালয়ের সচিব আকতারী মমতাজ ও বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন বক্তব্য দেন।
শীর্ষনিউজ/এমই